IMG-LOGO
বাড়ি আন্তর্জাতিক আমেরিকায় আততায়ীর গুলিতে ৪ জন শিখ-সহ মৃত ৮, অস্ত্র আইন নিয়ে প্রশ্ন
আন্তর্জাতিক

আমেরিকায় আততায়ীর গুলিতে ৪ জন শিখ-সহ মৃত ৮, অস্ত্র আইন নিয়ে প্রশ্ন

by Admin - 2021-04-17 10:06:25 1 Views 0 Comment
IMG


ইন্ডিয়ানাপোলিস, ১৭ এপ্রিল : ফের প্রশ্নের মুখে আমেরিকার অস্ত্র আইন। এবার মার্কিন মুলুকের ইন্ডিয়ানাপোলিসে এক শ্বেতাঙ্গ তরুণের গুলিতে প্রাণ হারালেন ৮ জন, যার মধ্যে ৪ জন ভারতীয় বংশোদ্ভূত শিখ রয়েছেন। গুলিবিদ্ধ হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত অমরজিত জোহাল (৬৬), জসবিন্দর কউর (৬৪), অমরজিত সখোঁ (৪৮) নামের ৩ শিখ মহিলা এবং জসবিন্দর সিং (৬৮) নামের একজন শিখ ব্যক্তি। গুরুতর জখম অবস্থায় আরও ৪ জন হাসপাতালে ভর্তি। তাঁদের মধ্যে একজনের অবস্থা অত্যন্ত আশঙ্কাজনক। হামলাকারী নিজেও ঘটনাস্থলে আত্মঘাতী হয়েছে। ভারতীয় বংশোদ্ভূত শিখদের মৃত্যুতে দুঃখপ্রকাশ করেছেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর।
স্থানীয় সময় অনুযায়ী বৃহস্পতিবার রাত এগারোটা নাগাদ ইন্ডিয়ানাপোলিসে ফেডএক্স ফেসিলিটি (পণ্য সরবরাহকারী সংস্থা)-র দফতরে হামলা চালায় ব্র্যান্ডন হোল নামের ওই আততায়ী। পুলিশ জানিয়েছে, গাড়ি থেকে নেমেই এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে চালাতে দফতরের ভিতরে ঢোকে বন্দুকবাজ। দফতরের একেবারে ভিতর পর্যন্ত যদিও ঢুকতে পারেনি সে। কিন্তু মাত্র কয়েক মিনিটে সামনে যাঁকেই পেয়েছে, তাঁকেই লক্ষ্য করে গুলি চালিয়েছে সে। তাতেই ৮ জন গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যান।
ইন্ডিয়ানাপোলিস পুলিশ জানিয়েছে, ফেডএক্স-এর ওই দফতরের অধিকাংশ কর্মীই ভারতীয় বংশোদ্ভূত এবং তাঁদের মধ্যে অধিকাংশ শিখ। হামলার সময় ওই দফতরে ১০০-রও বেশি কর্মী ছিলেন। এলোপাথাড়ি গুলির শব্দে হুলস্থুল পড়ে যায় সেখানে। যে যেখানে পারেন মাথা বাঁচাতে ছুটে যান। খবর পেয়ে অন্তত ৩০টি গাড়ি ভর্তি পুলিশ সেখানে গিয়ে পৌঁছয়। কিন্তু ভিতরে ঢুকে ব্র্যান্ডনের নিথর দেহ উদ্ধার করেন তাঁরা। তাঁর শরীরে গুলির ক্ষত ছিল। হামলা চালানোর পর সে নিজেকে গুলি করে আত্মঘাতী হয় বলেই ধারণা পুলিশের। 
মার্কিন মুলুকে এই হামলার ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করেছেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এবং পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং। এস জয়শঙ্কর টুইট করে জানিয়েছেন, "ইন্ডিয়ানাপোলিসে ফেডএক্স ফেসিলিটিতে গুলি চলার ঘটনায় স্তম্ভিত। মৃতদের মধ্যে ভারত-আমেরিকান শিখ কমিউনিটির সদস্যরা রয়েছেন।" মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং। এদিকে, এই হামলার পর ফের প্রশ্নের মুখে আমেরিকার অস্ত্র আইন। ক্ষমতায় এসেই অস্ত্র আইন কঠোর করতে উদ্যোগী হয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। কিন্তু, বাস্তবায়ন নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। এর আগে গত ২২ মার্চ কলোরাডোর একটি দোকানে বন্দুকবাজের হামলায় ১০ জন প্রাণ হারান। তার পর এক মাসও কাটেনি ইন্ডিয়ানাপোলিসে এই নৃশংস হত্যাকাণ্ড ঘটে গেল।